ওয়েবসাইট/ URL ব্লাকলিস্ট কি? ওয়েবসাইট ব্লাকলিস্ট কেন হয়? ওয়েবসাইট ব্লাকলিস্ট কিভাবে রিমুভ করতে হবে?

ওয়েবসাইট/ URL ব্লাকলিস্ট কি? ওয়েবসাইট ব্লাকলিস্ট কেন হয়? ওয়েবসাইট ব্লাকলিস্ট কিভাবে রিমুভ করতে হবে?

ওয়েবসাইট/ URL ব্লাকলিস্ট কি?

 

একটি ইউআরএল ব্ল্যাকলিস্ট হল ওয়েবসাইটগুলির একটি তালিকা যেগুলি মালিশিয়াস বা সন্দেহজনক আচরণে লিপ্ত হয়েছে এবং একটি সার্চ ইঞ্জিন, হোস্টিং প্রদানকারী, অ্যান্টিভাইরাস প্রোগ্রাম প্রদানকারী বা অন্য কোনো কর্তৃপক্ষের দ্বারা বিপজ্জনক বলে বিবেচিত হয়েছে৷

এবং গুগল বা বিভিন্ন এন্টিভাইরাস প্রোগ্রাম এই সমস্ত ওয়েবসাইটে ভিজিট করলে এরকম কিছু মেসেজ দেখায়:
“The site ahead contains malware” or “Deceptive site ahead,”

blacklist

 

ওয়েবসাইট/ URL ব্লাকলিস্ট কেন হয়?

 


● একটি ডোমেন যদি হ্যাক হয় এবং বেআইনি কার্যকলাপ সম্পাদন করে৷

● ওয়েবসাইটে যদি ম্যালওয়ার ইনজেক্ট করা হয় এবং তা দ্বারা যদি কোনো অপব্যবহার/Malicious Activity করা হয়৷

● ওয়েবসাইটে যদি সন্দেহজনক কোন সফটওয়্যার চলে৷

blacklist

 


ওয়েবসাইট/ URL ব্লাকলিস্ট থেকে কিভাবে সুরক্ষিত থাকব?

 


● একটি সিকিউর ওয়েব হোস্টিং ব্যবহার করতে হবে।

● ওয়েবসাইটের মালোয়ারি মোবাইলের জন্য অবশ্য একটি ভালো স্ক্যানার ব্যবহার করতে হবে।

● ওয়েবসাইটের থিম এবং প্লাগিনগুলো রেগুলার আপডেট করতে হবে।

● ওয়েবসাইটে সিকিউরিটির জন্য অবশ্যই স্ট্রং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে।

● ওয়েবসাইটের লিঙ্ক গুলো প্রতিনিয়ত চেক করতে হবে এবং রিমুভ করতে হবে।

● ওয়েবসাইটে যেকোনো ইউজারের এবং পারমিশন লিমিট করতে হবে।

● ওয়েবসাইটের লিমিট লগইন অপশন অবশ্যই চালু থাকতে হবে এবং কয়েকবার যদি কোন ইউজার ব্রুট ফোর্স এর মাধ্যমে ওয়েব সাইটে ঢোকার চেষ্টা করে তাহলে তাকে ব্লক করে দিতে হবে।

 

 

ওয়েবসাইট/ URL ব্লাকলিস্ট কিভাবে রিমুভ করতে হবে?


● সাধারণত ওয়েবসাইটে ব্ল্যাকলিস্ট গুগল, অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিন, এন্টিভাইরাস এবং হোস্টিং কোম্পানির মাধ্যমে হয়ে থাকে।

● আমাদের ওয়েবসাইটে যদি ম্যালওয়ার অথবা IP ব্ল্যাক লিস্টের কারণে ওয়েবসাইট অথবা ডোমেইন ব্ল্যাকলিস্ট করে থাকে তাহলে ব্ল্যাকলিস্ট কেন করেছে তার কারণ জানতে হবে।

● যদি ম্যালওয়ারের কারণে ওয়েবসাইট ব্ল্যাকলিস্ট হয় তাহলে ওয়েবসাইট স্ক্যান করতে হবে এবং ওয়েবসাইট থেকে ম্যালওয়্যার গুলো রিমুভ করতে হবে।

● এবং অবশেষে গুগল, অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিন, এন্টিভাইরাস এবং হোস্টিং কোম্পানি যারা ব্লক লিস্ট করেছে তাদের কাছে Blacklist রিমুভাল রিকোয়েস্ট করতে হবে।

 

গুগোল ব্ল্যাকলিস্ট REMOVAL PROCESS:


Google যদি পুরো ওয়েবসাইট ব্ল্যাকলিস্ট করে দেয় তাহলে ওয়েবসাইটের ম্যালওয়ার গুলো ক্লিন করার পর ওয়েবসাইটকে গুগলের Search Console থেকে রিমুভাল রিকুয়েস্ট দিতে হবে।

 

google site review

 

পরবর্তীতে গুগোল আমার ওয়েবসাইটটি রিভিউ করে যদি কোনো ম্যালিশিয়াস কনটেন্ট SEO Spamming না পায় তাহলে আমার ওয়েবসাইটে ঠিক করে দিবে।

● সম্পূর্ণ প্রসেস এই ভিডিওতে দেখানো হয়েছে: https://youtu.be/oNbYdy_4XG4

 

● Premium Malware Cleaner


আমি আগের একটি ব্লগে ওয়েবসাইটে ম্যানুয়ালি ম্যালওয়ার রিমুভাল প্রসেস দেখিয়েছি। ওয়েবসাইটে ম্যানুয়ালি রিমুভ করার জন্য আগে ম্যালওয়ার গুলোকে চিনতে হবে তারপর রিমুভ করতে হবে।

যদি মেনুয়ালি রিমুভাল করা সম্ভব না হয় তাহলে আমরা ওয়ার্ডপ্রেসে বিভিন্ন প্রিমিয়াম সিকিউরিটি প্লাগিন এর মাধ্যমে ম্যালওয়ার রিমুভ করতে পারি।

● Wordfence
● Sucuri
● Malcare
● Astra Security

 

● getastra SEO Spam Scanner

 

https://www.getastra.com/seo-spam-scanner

> You can get report about seo spam for your website.

spam check

 

● Google Safe Browsing

 

https://transparencyreport.google.com/safe-browsing/search

> It will give you report about safe browsing for your website.

google transperancy

 

Read more blogs on ethical hacking from here.

 

Thanks
Minhazul Asif

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *