স্কয়ারস্পেইস কেন জনপ্রিয় একটি CMS?

স্কয়ারস্পেইস কেন জনপ্রিয় একটি CMS?

Squarespace হল একটি সহজ এবং কার্যকরী CMS যা আপনাকে অনায়াসে একটি ওয়েবসাইট বা একটি অনলাইন স্টোর তৈরি এবং পরিচালনা করতে সাহায্য করবে। এটি আপনাকে কার্যকরভাবে সাইটটিকে personalize করতে সাহায্য করার জন্য অনেক টেমপ্লেট, ফন্ট এবং COLOR প্যালেট অফার করে। আপনি সাইটটি তৈরি করার পাশাপাশি এটি মার্কেটিং করার জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত TOOLS পাবেন।  অর্থাৎ যেকোন ফিচার ইন্টিগ্রেট করার জন্য স্কয়ারস্পেস এর ভিতরেই বিভিন্ন ধরনের টুল রয়েছে। তবে তাদের লিমিটেশন হলো তারা third-party কোন প্লাগিন বা অ্যাপ নিজেদের প্লাটফর্মে অ্যালাও করেনা।

স্কয়ারস্পেসের বিল্ডার, টেমপ্লেট:

এছাড়াও, আপনি খুব সহজেই শুরু করতে সক্ষম হবেন কারণ আপনি আপনার পছন্দের একটি টেমপ্লেট বেছে নিতে পারেন এবং সরাসরি নির্দেশাবলী অনুসরণ করতে পারেন। স্কয়ারস্পেসের চমৎকার একটি বিল্ডার রয়েছে যাদের সহজে আপনি drag-and-drop এর মাধ্যমে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন এবং, আপনি আপনার ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার না করেই বিনামূল্যে ট্রায়াল ব্যবহার করতে পারেন।

squarespace template

স্কয়ারস্পেসের ওয়েবসাইট রেস্পন্সিভনেস:

স্কয়ারস্পেস ডিজাইনটি নিখুঁত করার দিকে প্রচুর কাজ করছে। ডিজাইনারদের ধারণা, টেম্পলেটগুলি স্কয়ারস্পেসকে অন্য প্রতিযোগীদের থেকে আলাদা করে তোলে। সমস্ত টেম্পলেটগুলি মোবাইল, ডেক্সটপ এবং ট্যাব ডিভাইসগুলিতে দুর্দান্ত দেখাবে  অর্থাৎ  ডিজাইনগুলো অটো রেস্পন্সিভ হবে।  এছাড়াও যেকোন টেমপ্লেট ব্যবহার করলেও টেম্পলেটগুলো অর্থ রেস্পন্সিভ থাকে। এছাড়া আপনি পছন্দমত CSS ওয়েব সাইটে এড করে ওয়েবসাইটের আউটলুক খুব সহজেই চেঞ্জ করতে পারবেন।

রেসপন্সিভ ইমেজ লোডার যখনই আপনি একটি ইমেজ ফাইল আপলোড করেন, SquareSpace স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিভিন্ন স্কেলে ছবির একটি সেট তৈরি করে। ব্যবহারকারীর ডিভাইসের উপর নির্ভর করে যথাযথ আকারের  ইমেজ ফাইল লোড করা হয়, যা অন্য সিএমএস গুলোতে লক্ষ্য করা যায় না।

squarespace responsiveness

 

স্কয়ারস্পেসের COLOR PALETTE:

স্কয়ারস্পেসের নতুন আপডেটগুলির মধ্যে একটি হল এটি সাইট স্টাইল ফাংশন। এটি আপনাকে ফন্ট, রঙ, অ্যানিমেশন, স্পেসিং এবং অন্যান্য ধরণের টুইকস প্রয়োগ করে আপনার পুরো সাইটের জন্য একটি কাস্টম এবং সামঞ্জস্যপূর্ণ চেহারা তৈরি করতে দেয়। অর্থাৎ তারা বিভিন্ন ধরনের থিম PALETTE তৈরি করে রেখেছে সুতরাং আপনার ওয়েবসাইটে খুব সহজে আপনি যেকোনো একটি COLOR PALETTE ইউজ করে ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে পারবেন।

এর মাধ্যমে একটি ফন্ট প্যাক  বেঁছে নিতে পারবেন এবং আপনার পুরো ওয়েবসাইটের TITLE, PARAGRAPH এবং BUTTON  এর জন্য ফন্ট PALETTE সেট করতে পারবেন  এবং এটি আপনার সাইট জুড়ে কোথায় প্রদর্শিত হবে তা সামঞ্জস্য করতে পারেন। আপনি পৃথক SECTION এবং স্টাইল করতে পারেন  প্রতিটি আলাদা সেকশন এর জন্য।

squarespace color pallete

 

স্কয়ারস্পেস ওয়েবসাইট স্পিড অপটিমাইজেশন: 

স্কয়ার SELF HOSTED প্লাটফর্ম হওয়াতে SPEED অপটিমাইজেশন এর জন্য আলাদা তেমন কোন কাজ করতে হয় না।  তাদের  প্ল্যাটফর্ম এর ভিতরেই স্পিড অপটিমাইজ করা থাকে।  শুধুমাত্র আমরা ইমেজ গুলোকে অপটিমাইজ করলে একটি দ্রুত লোডিং ক্ষমতাসম্পন্ন ওয়েবসাইট সহজেই পাওয়া যায়। স্পিড অপটিমাইজেশন নিশ্চিত করতে Squarespace একটি বিনামূল্যের CDN প্রদান করে(কন্টেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক)।

squarespace speed optimization

 

স্কয়ারস্পেস PRICING

Squarespace 4টি সহজ মূল্যের PRICING অফার করে যা বিভিন্ন ব্যবসার প্রয়োজনীয়তার জন্য CATEGORISED. আপনি বার্ষিক বা মাসিক প্ল্যান এর উপর ভিত্তি করে রেটগুলি আলাদা হবে৷

squarespace pricing

Annual

  • Personal – $12
  • Business – $18
  • Basic Commerce – $26
  • Advanced Commerce – $40

Monthly

  • Personal – $16
  • Business – $26
  • Basic Commerce – $35
  • Advanced Commerce – $54

স্কয়ারস্পেস ওয়েবসাইট ফাংশনালিটি: 

ওয়েবসাইটের যেকোনো ফাংশনের জন্য স্কয়ারস্পেস ভিতরে টুল রয়েছে। যেমন মেম্বারশিপ,  প্রাইসিং,  ডোনেশন,  ওয়েবসাইট ফরম,  পেমেন্ট GATEWAY,  ই-কমার্স ফাংশনালিটি,  শিপিং,  কুপন  ইত্যাদি। তবে third-party এর কোন টুল/APP  ইন্ট্রিগেশন করতে না পারার কারণে অনেক  ফিচার স্কয়ারস্পেস দেওয়া সম্ভব হয় না।

স্কয়ারস্পেস ECOMMERCE:

স্কয়ারস্পেস প্লাটফর্মে যেকোনো ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য একটি চমৎকার প্লাটফর্ম।  কারণ এখানে খুব সহজেই প্রোডাক্ট আপলোড করা যায়,  পেমেন্ট গেটওয় ইন্ট্রিগেশন করা যায়,  এছাড়াও শিপিং  এবং টেক্স কনফিগারেশন করাও খুব সহজ। এছাড়া ওয়েবসাইটে প্রোডাক্টগুলো SHOW করানোর জন্য তাদের টেমপ্লেট এর মধ্যে WIDGET রয়েছে।

বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ভাগ করে ওয়েবসাইটে আলদা আলদা ভাবে ভাগ করা যায়।  এবং স্পেস ই-কমার্স ওয়েবসাইট আলাদা একটি SHOP পেইজ থাকে যেখানে সমস্ত প্রোডাক্ট  ক্যাটাগরি অনুযায়ী দেখানো যায়।  এছাড়াও বেস্ট সেলিং প্রডাক্ট,  নিউ প্রডাক্ট, SALE  প্রডাক্ট খুব সহজেই চিহ্নিত করে আলাদা আলাদা ক্যাটাগরিতে ভাগ করে ওয়েবসাইটে দেখানো যায়।  এছাড়াও খুব সহজে প্রতিদিন কত টাকার কেনাবেচা হচ্ছে,  প্রতিদিন কতজন কাস্টমার আমার ওয়েবসাইটে  কেনাকাটা করলো, মাসে কত টাকার কেনাবেচা হচ্ছে তা সহজেই একটি DASHBOARD  মাধ্যমে দেখা যায়। এছাড়াও  প্রোডাক্ট গুলোর ইনভেন্টরি ম্যানেজমেন্ট  এবং মার্কেটিং খুব সহজেই স্কোয়ারস্পেইস প্লাটফর্মে করা যায়।

squarespace ecommerce

স্কয়ারস্পেস কাস্টমার সাপোর্ট:

Squarespace এর প্রিমিয়াম সাবস্ক্রিপশন নিলে চমৎকার কাস্টমার সাপোর্ট পাওয়া যায়।  যেকোনো ডিজাইন, ডোমেইন কানেক্ট,  নেম সার্ভার রিলেটেড ইস্যুতে তারা চমৎকার সাপোর্ট দিয়ে থাকে। সবচেয়ে চমৎকার ব্যাপার হলো তারা one-on-one কাস্টমার সাপোর্ট প্রোভাইড করে থাকে অর্থাৎ আপনার জন্য একজন আলাদা কাস্টমার ম্যানেজার নিয়োগ করা হয়।

স্কয়ারস্পেস ডোমেইন কানেক্ট: 

স্কয়ারস্পেস SELF HOSTED CMS  হওয়াতে,  ওয়েবসাইট ডিজাইন তাদের নিজস্ব প্লাটফর্মে করতে হয়,  এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের ফিচার এড করার পর সম্পূর্ণ ওয়েবসাইট ডিজাইন শেষ হলে ওয়েবসাইটটিকে একটি কাস্টম ডোমেইন  এ ট্রান্সফার করা যায়। ডোমেইন স্কোয়ারেস্পেইস থেকেও নেওয়া যায় এছাড়া অন্য যে কোন প্লাটফর্ম থেকে ডোমেইন নিয়ে স্কয়ার স্পেস এর সাথে কানেক্ট করা যায়।  এ ক্ষেত্রে শুধুমাত্র কাস্টম নেম সার্ভার স্কয়ারস্পেস এর সাথে কানেক্ট করে দিলেই নতুন ডোমেইনে ওয়েবসাইট ট্রানস্ফার হয়ে যাবে।  এছাড়া ডোমেইন কানেক্ট করার জন্য চমৎকার কাস্টমার সাপোর্ট পাওয়া যায়।

squarespace domain connect

স্কয়ারস্পেস SEO:

স্কয়ারস্পেস প্লাটফর্মে SEO  করার জন্য তাদের নিজস্ব টুল রয়েছে,   করার জন্য তাদের নিজস্ব টুল রয়েছে অর্থাৎ গুগলে ওয়েবসাইট সাবমিট করার আগে অনপেইজ SEO অপটিমাইজেশন করার জন্য স্কোয়ারেস্পেইস প্ল্যাটফর্মের টুল নিজেই সাজেস্ট করে কি কি কাজ করতে হবে।  অর্থাৎ ওয়েবসাইটের কিওয়ার্ড,  টাইটেল,  মেটা ডেসক্রিপশন দেওয়াসহ প্রতিটি পেইজের অনপেজ অপটিমাইজেশন করার জন্য কি কি করতে হবে তা স্কয়ারস্পেস প্লাটফর্ম থেকেই জানা যায় এবং এসইও এর কাজ সহজেই সম্পাদন করা সম্ভব।  সবশেষে ওয়েবসাইটটি গুগল সার্চ  কনসোল এ সাবমিট করতে হয়।

squarespace seo

সর্বোপরি এটা বলা যায় স্কোয়ারস্পেইস প্লাটফরমটি নতুন যেকোনো ওয়েবসাইট ডিজাইনারের জন্য চমৎকার একটি সিএমএস।  তবে অন্যান্য সিএমএস এ ওয়েবসাইট বিল্ড করার জন্য তাদের বিল্ডার গুলো অনেক পাওয়ারফুল এবং থার্ড-পার্টির বিভিন্ন অ্যাপ এন্ট্রি গেট করে যেকোনো ফিচার এড করা যায়, সে ক্ষেত্রে স্কোয়ারস্পেইস কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও তাদের প্রাইসিং প্ল্যান  এবং কাস্টমার সাপোর্ট এর জন্য তারা যেকোনো ছোট বিজনেস বা এজেন্সি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য একটি অনন্য প্ল্যাটফর্ম।

Read more blogs on freelancing here.

 

Thanks
Minhazul Asif

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *